সম্পাদক বজলুর রহমান স্মারক বক্তৃতা অনুষ্ঠিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এবং বজলুর রহমান ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে “সম্পাদক বজলুর রহমান স্মারক বক্তৃতা” ০৬ আগস্ট ২০১৭ রবিবার অধ্যাপক মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রয়াত সাংবাদিক বজলুর রহমানের ৭৬তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এই স্মারক বক্তৃতার আয়োজন করা হয়। 
গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন। “মিডিয়ায় প্রযুক্তি ও পুঁজির ছায়া: অংশীদারিত্ব, পেশাদারিত্ব ও প্রতিষ্ঠান” শীর্ষক স্মারক বক্তৃতা প্রদান করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম। আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্ণর ও বজলুর রহমান ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান খন্দকার ইব্রাহিম খালেদ এবং সংবাদের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কাশেম হুমায়ুন। 
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রয়াত সাংবাদিক বজলুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, তিনি একজন দেশপ্রেমিক মুক্তিযোদ্ধা ও নিরহঙ্কার, নির্লোভ ব্যক্তি ছিলেন। অজ্ঞতা, অন্যায় ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে তিনি সংগ্রাম করে গেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অর্থনীতি বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভের পর তার অন্য পেশায় যাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা ও সাধারণ মানুষের সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে তিনি সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে বেছে নেন। ‘সাংবাদিকতা পেশায় এধরনের মানুষেরই দরকার’ মন্তব্য করে উপাচার্য বলেন, ”মিডিয়ায় প্রযুক্তি ও পুঁজির অনুপ্রবেশের কারণে সাংবাদিকতার মূল্যবোধ যেন বিকিয়ে না যায়” সে ব্যাপারে প্রয়াত এই সাংবাদিক গণমাধ্যম কর্মীদের সতর্ক করতেন। তার জীবন ও কর্ম থেকে শিক্ষা নিয়ে সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করে উপাচার্য বলেন, পূর্বে সাংবাদিকতা পেশায় সুযোগ-সুবিধা কম থাকলেও বস্তুনিষ্ঠতা ছিল। এখন এ পেশায় সুযোগ-সুবিধা বেড়েছে, তবে বস্তুনিষ্ঠতা কমেছে। সাংবাদিকদের ভুল তথ্য ও অপতথ্যের মাধ্যমে অনেক ক্ষেত্রেই মানুষ বিভ্রান্ত হচ্ছে উল্লেখ করে উপাচার্য বলেন, নির্দিষ্ট এজেন্ডা নিয়ে গণমাধ্যমে অপতথ্য দেওয়া উচিৎ নয়। অপতথ্য দিয়ে প্রধান শিরোনাম করা হলে একই ধরণের ট্রিটমেন্ট দিয়ে প্রতিবাদ ছাপানো উচিৎ। সাংবাদিকতার মৌলিক নীতিমালা সম্পর্কে শিক্ষা গ্রহণের জন্য তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।
উল্লেখ্য, সাংবাদিক বজলুর রহমান ১৯৪১ সালের ৩ আগস্ট ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণ করেন এবং ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি ‘সংবাদ’ পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।
                   -----------------------  

(মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম)
উপ-পরিচালক
জনসংযোগ দফতর
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এবং বজলুর রহমান ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে “সম্পাদক বজলুর রহমান স্মারক বক্তৃতা” ০৬ আগস্ট ২০১৭ রবিবার অধ্যাপক মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন (ছবি: ঢাবি জনসংযোগ)
 

Latest News
  • ঢাবি জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু

    17/07/2018

    Read more...
  • ঢাবি’র ৩জন ছাত্রকে সাময়িক বহিস্কার

    16/07/2018

    Read more...
  • বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ এ. এফ. এম. নজরুল মজিদ বেলাল-এর স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

    16/07/2018

    Read more...
  • Two-day Career Fest begins at DU

    16/07/2018

    Read more...
  • জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ঢাবি পরিবারের শ্রদ্ধা নিবেদন

    15/07/2018

    Read more...
  • 8 DU students get scholarship

    15/07/2018

    Read more...
  • ‘বিজ্ঞানী ড. মাকসুদুল আলম স্মৃতি ট্রাস্ট ফান্ড’ গঠন

    12/07/2018

    Read more...